Opu Hasnat

আজ ৩০ নভেম্বর বুধবার ২০২২,

নাটোরে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, সকল ধর্ষকক আটক নাটোর

নাটোরে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, সকল ধর্ষকক আটক

নাটোর শহরের হাফরাস্তা এলাকায় এসএসসি পরীক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ জানতে পেরে সাড়াশি অভিযান চালিয়ে মাত্র ৪ ঘন্টার মধ্যে জড়িত সকল ধর্ষককে আটক করেছে। সারারাত মুষলধারে বৃষ্টি উপেক্ষা করে নিজের জীবনবাজি রেখে এসআই জামাল উদ্দীনসহ সঙ্গীয় ফোর্স দুঃসাহসিক অভিযান চালিয়ে সকল ধর্ষককে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। 

জানা যায়, 'বিয়ে করার জন্য বাড়ি থেকে পালিয়ে এসেছেন' এমন কথা বলে নাটোর শহরে বাসা ভাড়া নেন এক তরুণ (১৯) ও এক কিশোরী (১৬)। মঙ্গলবার দুপুরে তারা ওই ভাড়া বাসায় ওঠেন। বিষয়টি এলাকার কয়েক যুবক জানতে পারেন। রাতে স্থানীয় যুবকেরা ওই যুগলকে জিজ্ঞাসাবাদ করার কথা বলে বাসায় ঢুকে পড়েন। একপর্যায়ে তরুণকে বেঁধে রেখে কিশোরীকে ধর্ষণ করে যুবকেরা পালিয়ে যান।

পরে ভুক্তভোগী কিশোরী ও তরুণ বিষয়টি নাটোর সদর থানার পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে পুলিশ অভিযুক্ত তিন যুবককে আটক করেছে। আটক তিন যুবক হলেন সোহান আলী (২৮), রকি হোসেন (২২) ও রনি আহম্মেদ (২৮)। তাঁরা সবাই নাটোর শহরের বাসিন্দা। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়িওয়ালা ও তার স্ত্রীকে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

নাটোর সদর থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বাসা ভাড়া নেওয়া তরুণ ও কিশোরী দুজনেই রাজশাহী শহরের বাসিন্দা। মঙ্গলবার দুপুরে তারা নাটোর শহরে এসে একটি বাসা ভাড়া নেন। ভাড়া নেওয়ার সময় ওই যুগল বাড়িওয়ালার স্ত্রীকে বলেন, তারা বিয়ে করার জন্য বাড়ি থেকে পালিয়ে এসেছেন। রাতেই তারা বিয়ে করবেন। তবে বিষয়টি এলাকার কয়েক যুবক জানতে পারলে রাত ১১টার দিকে যুবকেরা ওই বাড়িতে আসেন। পরে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। পুলিশ সদর উপজেলার মদনহাট থেকে অভিযুক্ত তিন যুবককে আটক করে থানায় আনে।

নাটোর সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম বলেন, খবর পাওয়ার পর পুলিশের একাধিক দল এ অভিযানে অংশ নেয়। আটক যুবকেরা চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদকাসক্ত হিসেবে পরিচিত। তাঁদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা আছে।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহমেদ বলেন, ওই কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। কিশোরী ও তরুণের অভিভাবকেরা নাটোর এসেছেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। আটক তিন যুবকের মুঠোফোন থেকে ওই কিশোরীর নগ্ন ছবি উদ্ধার করা হয়েছে। ধর্ষণের পর তারা ওই ছবিগুলো তোলেন।