Opu Hasnat

আজ ১২ আগস্ট শুক্রবার ২০২২,

ব্রেকিং নিউজ

সৈয়দপুরে নিষিদ্ধজালে মাছ শিকার! নীলফামারী

সৈয়দপুরে নিষিদ্ধজালে মাছ শিকার!

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নিষিদ্ধ ‘চায়না দুয়ারী’ জাল দিয়ে চলছে অবাধে মাছ শিকার। খাল-বিলে ও জলাশয়ে জাল দিয়ে ফাঁদ পেতে ব্যাপক হারে ছোট মাছ শিকার করছেন প্রান্তিক জেলেগণ। এতে দেশি নানা প্রজাতির মাছের অবাধ বিচরণ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছেনস্থানীয় সচেতন মহল। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের এ ব্যাপারে জোরালো কোনো প্রকার তদারকিনেই বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

এলাকাবাসী সূত্র হতে জানা যায়, উপজেলার সর্বত্র মাছের মরণফাঁদ চায়না দুয়ারী জালের অবাধ ব্যবহার। কারেন্ট জালের চাইতেও ভয়ংকর জাল চায়না দুয়ারী। লোহার রডের গোলাকার বা চতুর্ভুজ আকৃতির কাঠামোর চারপাশে চায়না জাল দিয়ে ঘিরে এই চায়না দুয়ারী নতুন ফাঁদ তৈরি করা হয়েছে। চায়না দুয়ারী ৫০ থেকে ৮০ হাত পর্যন্ত লম্বা হয়। কেউ কেউ এনজিও’র টাকায় কেফবা ঋণ করে এই জাল কিনে মাছ ধরছেন।শুধু দেশিজাতীয় ছোট মাছ নয় বরং এই জালে আটকা পড়ে সব প্রজাতির মাছ। স্বল্প ব্যয়ে এবং পরিশ্রমে অধিক আয়ের উৎস হওয়ায় জেলেদের কাছে খুব দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এটি। উপজেলা সদরের সব বাজারেই চায়না দুয়ারি জাল দিয়ে ধরা ছোট ছোট মাছ বিক্রি হচ্ছে। এই ফাঁদ ব্যবহার করলে দেশিয় প্রজাতির মাছ বিলুপ্ত হয়ে যাবে বলে জানান সচেতনমহল।

সৈয়দপুর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আতাউর রহমান জানান, আমরা প্রচার চালিয়েছি। আমাদের অভিযানও অব্যাহত আছে। কেউ এই জাল দিয়ে মাছ শিকার করলে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’