Opu Hasnat

আজ ৭ ডিসেম্বর বুধবার ২০২২,

কবিতা তারাই লেখেন যারা প্রতিটা পদে পদে জীবনকে আবিস্কার করেন : আসাদুজ্জামান নূর শিল্প ও সাহিত্য

কবিতা তারাই লেখেন যারা প্রতিটা পদে পদে জীবনকে আবিস্কার করেন : আসাদুজ্জামান নূর

উত্তরের জনপদ নীলফামারী-২ আসনের এমপি এবং সাবেক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, কবিতা তারাই লেখেন যারা জীবন চলার গতিতে গা ভাসিয়ে প্রতি পদে পদে জীবনকে আবিস্কার করেন। একজন বিজ্ঞানী আবিস্কার করেন কিন্তু একজন কবি বিজ্ঞানীর অনুসন্ধানি চোখের ন্যায়  দেখেন এবং কলমের কালিতে তা প্রকাশ করেন।

তিনি আরো বলেন, সমাজ পরিবর্তনের অনেক বার্তা আমি পেয়েছি কবিদের রচিত কবিতা থেকে, সাহস পেয়েছি কবিতার পঙতিমালা পড়ে। এ জন্যে কবিদের প্রতি আমি অত্যন্ত শ্রদ্ধাশীল। তিনি বলেন, সারাদেশে এমন চর্চা অব্যহত থাকলে এবং বাঙালি এ সাহিত্য ও সংস্কৃতির স্বাদ পেলে দেশে জঙ্গীবাদ-সন্ত্রাসবাদ থাকত না। গতানুগতিক শিক্ষার পরিবর্তে সন্তানদের  সৎ ও দক্ষ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার উপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন।

মানবমুক্তির ক্ষেত্রে সাহিত্যের অপরিসীম গুরুত্বের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, আমি কবিতা ভালোবাসি কিন্তু কবিতা লিখতে পারি না। এজন্য আমি কবিদের  হিংসা করি। কবিরা জাতির বিবেক, মুক্ত চেতনার ধারক ও বাহক। তিনি আরো বলেন ১৯৭৫সালে আমরা জাতির পিতাকে হারিয়েছি। তারপর থেকে দেশ উল্টো পথে হেঁটেছে কিন্তু বঙ্গবন্ধূর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা প্রাণের এই দেশকে সঠিক পথে পরিচালিত করে চলেছেন।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষ্যে বীরগঞ্জের গোলাপগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত "শুদ্ধস্বরে শব্দশর" এ প্রতিপাদ্যের সাথে শব্দশরের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তী সাহিত্য সম্মেলন ও মনোনিত গুণিজন‘শব্দশর সম্মাননা’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অথিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তাঁর বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

‘শব্দশর’ সাহিত্য সংগঠনের কর্নধার কবি বাবুল চৌধুরী’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অনান্যদের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন দিনাজপুর-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য এবং শব্দশর সাহিত্য সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা মনোরঞ্জন শীল গোপাল, একুশে পদকপ্রাপ্ত ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ফটো জার্নালিস্ট পাভেল রহমান, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, কার্টুনিস্ট এবং চিত্রশিল্পী শিশির ভট্টাচার্য্য। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শব্দশরের উপদেষ্টা, কবি ও গবেষক ড. মাসুদুল হক এবং স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন শব্দশরের সাধারণ সম্পাদক মো: লাল মিঞা।

তবে বক্তব্যের শুরুতে শব্দশরের সিনিয়র সহসভাপতি কবি বাসব রায়ের সম্পাদনায় ৪৫৬ পৃষ্ঠার বৃহৎ শব্দশর সাহিত্য সংকলনের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। সভাপতির বক্তব্য শেষ করে উক্ত মঞ্চেসাহিত্যের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য মনোনিত ১৪জন গুণি সাহিত্যজনকে প্রধান অতিথির হাত থেকে ‘শব্দশর সম্মাননা’ প্রদান করা হয়। তারা হলেন-

ছড়া কাব্যে প্রফেসর জলিল আহমেদ, দিনাজপুর
গবেষণায় ড. মাসুদুল হক, দিনাজপুর
গবেষণায় মোজাম্মেল বিশ্বাস, দিনাজপুর
উপন্যাসে লায়লা চৌধুরী, দিনাজপুর
কবিতায় বাসব রায়, দিনাজপুর
কবিতায়জোবাইদুর রহিম, দিনাজপুর
সাংবাদিকতায় শাহ্ আলম শাহী, দিনাজপুর
কবিতায়মাহাবুবা আখতার, ঠাকুরগাঁও
কবিতায় সুলতানা বেগম, ঠাকুরগাঁও,
গল্প ও প্রবন্ধেশফিকুল ইসলাম, পঞ্চগড়
সমাজকল্যাণমূলক লেখনীতে সৈয়দা রুখসানা জামান শানু, সৈয়দপুর, নীলফামারী
কবিতায় সাজু কবীর, রংপুর
আবৃত্তিতে মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম
আবৃত্তিতে ইসমত আরা, হাতিবান্ধা, লালমনিরহাট এয়াড়াও সাংগঠনিক কাজে বিশেষ অবদান রাখার জন্য শব্দশর সংগঠনের ২২জন দক্ষ সাংগঠনিককে বিশেষ সম্মানা স্মারক প্রদান করা হয়।

এর আগে প্রভাতে স্থানীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীী উপলক্ষ্যে পঞ্চাশটি মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন সম্মানিত বিশেষ অতিথি পাভেল রহমান। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন শব্দশরের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কবি বাবুল চৌধুরী। এবং পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কবি বাসব রায়, কবি সৈয়দা রুখসানা জামান শানু, কবি মাহবুবা আকতার এবং কবি বিধান দত্ত।