Opu Hasnat

আজ ১৮ সেপ্টেম্বর শনিবার ২০২১,

ব্রেকিং নিউজ

সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যানের উদ্যোগে ফ্রি অক্সিজেন সেবা নীলফামারী

সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যানের উদ্যোগে ফ্রি অক্সিজেন সেবা

বৈশ্বিক মহামারি করোনাকালে শ্বাসকষ্টের রোগী কিংবা করোনা রোগীর জন্য, জরুরি ভিত্তিতে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা চালু করা হয়েছে। সৈয়দপুরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় অক্সিজেনের চাহিদা মেটাতে মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করে এগিয়ে এসেছেন সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোখছেদুল মোমিন।

নীলফামারীর সৈয়দপুরে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোখছেদুল মোমিনের সহযোগিতায় করোনাকালে চালু করা হয়েছে ফ্রি অক্সিজেন সেবা। একটি মাত্র ফোন কলেই তারই নির্দেশে স্বেচ্ছাসেবীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে পৌঁছে যাচ্ছে রোগীর বাড়িতে এবং তা সেটিং করে দিচ্ছেন।

শহরের বিশিষ্ট চিকিৎসকদের নিয়ে তিনি গঠন করেছেন উপদেষ্টা কমিটি। এতে ডা. শেখ নজরুল ইসলাম, ডা. খায়রুরল বাশার, ডা. আনিছুল হক, ডা. আবু মো. আলেমুল বাসার ও ডা. রায়হান তারেক কে রাখা হয়েছে। পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ডে ও উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে তদারকি কমিটি গঠন করা হয়েছে। হট লাইন নাম্বার -০১৭৩৪৪৮৪১০৪ দেওয়া হয়েছে। ফোন কল পেলেই উপজেলা চেয়ারম্যানের নির্দেশে স্বেচ্ছাসেবীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার দ্রুত পৌছে দিচ্ছেন রোগীর বাড়িতে।

শহরের চাঁদনগরে অক্সিজেন সিলিন্ডার কথা বলে ফোন করা হয়। এরপর ছুটে গেলেন দুই স্বেচ্ছাসেবী মিলন ও সুলতান। রোগীর লোক অক্সিজেন পেয়ে বলতে লাগলেন চেয়ারম্যান সাহেব জীবনে অনেক ভালো কাজ করেছেন, আমাদের কাছে তাঁর এই কাজ সব থেকে ভালো লেগেছে।

এ প্রসঙ্গে সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ও সামাজিক দায়বদ্ধতা এই অক্সিজেন সেবা কার্যক্রম চালু করেছি। কারণ আমি নিজেও করোনা রোগী ছিলাম। তাই বুঝি এর কষ্টটা।

এ কর্মসূচির উদ্যোক্তা মোখছেদুল মোমিন জানান, জরুরী অক্সিজেন সেবা কার্যক্রমে ২০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার, ৬০টি ন্যাজাল ক্যানুলা এবং ১০টি নেবুলাইজার রয়েছে। পরবর্তীতে এসব উপকরণ আরও বৃদ্ধি করা হবে। যাতে করোনা আক্রান্ত রোগিরা অক্সিজেন সংকটে না ভুগেন। এ সেবা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য ৪০ জনের একটি স্বেচ্ছাসেবক টীমও গঠন করা হয়েছে।

সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. রমিজ আলম বলেন, করোনাকালে এটি একটি প্রশংসিত কাজ। ভালো কাজের সাথে উপজেলা প্রশাসন সবসময় রয়েছে।