Opu Hasnat

আজ ৩০ জুলাই শুক্রবার ২০২১,

ব্রেকিং নিউজ

নড়াইলে ব্যাংকে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগে আটক ২ নড়াইল

নড়াইলে ব্যাংকে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগে আটক ২

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মিঠাপুরে ব্যাংকে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। রোববার (১৩ জুন) দুপুরে মিঠাপুর বাজারের উত্তরপার্শ্বে ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকের কার্যালয়ে হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় রোববার রাতে লোহাগড়া থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ শুকুর বিশ্বাস(৪৫) ও টোকো বিশ্বাস(৪৩) নামে দু’জনকে আটক করেছে। আটককৃত শুকুর বিশ্বাস ও টোকো বিশ্বাস একই  উপজেলার চাকুলিয়া গ্রামের আবুল বিশ্বাসের(৭০) ছেলে। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, মিঠাপুর বাজরে অবস্থিত ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিং অফিসের ম্যানেজার মো. রিয়াজুল ইসলামের কাছে বিদ্যুত বিল দিতে আসে পার্শ্ববর্তী চাকুলিয়া গ্রামের আবুল বিশ্বাস। এ সময় ম্যানেজার রিয়াজুলের সাথে ১০ টাকা নিয়ে বাকবিতন্ডতায় লিপ্ত হন আবুল বিশ্বাস। কিছুক্ষণ কথা কাটাকাটির পর আবুল  বিশ্বাস চলে যান। দশ মিনিট পর আবুল বিশ্বাস তার দুই ছেলে শুকুর বিশ্বাস ও টোকো বিশ্বাসসহ আরো কয়েকজনকে সাথে নিয়ে জোটবদ্ধ হয়ে লাঠিসোটা ও দেশিয় অস্ত্র নিয়ে ডাচ বাংলা ব্যাংকে ঢুকে ব্যাংকের স্টাফদের মারধর  করে ও বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং ব্যাংকে কর্মরতদরে হত্যার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় ব্যাংকের প্রায় ৬০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে ব্যাংক ম্যানেজার রিয়াজুল অভিযোগ করে বলেন, নিয়ম অনুযায়ী বিদ্যুৎ বিলের সাথে বিলম্ব ফি দিতে বলায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সাথে আবুল বিশ্বাস কথা কাটাকাটি করে ব্যাংক থেকে চলে যান । কিছু সময় পর আবুল ও তার দুই ছেলেসহ ৮ জন ব্যাংকে ঢুকে আমাদের মারধর করে। অফিসের মালামাল ভাঙংচুর করে। আমাদের হত্যার হুমকি প্রদান করে। আমি সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে প্রশাসনের কাছে বিচার চায়। 

এদিকে আবুল বিশ্বাস সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তারা ব্যাংকের ভিতর কোন ধরনের হামলা ও ভাংচুর করেনি। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছে। 

এ ব্যাপারে লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ হেনা মিলন জানান, এ ঘটনায় ব্যাংকের ম্যানেজার বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ দু’জনকে আটক করেছে। অন্যান্য আসামীদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।