Opu Hasnat

আজ ১৮ জুন মঙ্গলবার ২০২৪,

সৈয়দপুর আদানী মোড়-চৌধুরীপাড়া গ্রামীণ পাকা সড়ক চলাচলের অনুপযোগি! নীলফামারী

সৈয়দপুর আদানী মোড়-চৌধুরীপাড়া গ্রামীণ পাকা সড়ক চলাচলের অনুপযোগি!

গ্রামীণ পাকা সড়ক। এটি তৈরির পর ২৫/৩০ বছরেও আর মেরামত বা সংস্কারের কোনো বালাই নেই। ফলে পাকা সড়কটি চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। খালি রিকশা, ভ্যান, ইজিবাইক চলাচলে বড়ই কষ্টকর, সেখানে যাত্রী বা মালামাল নিয়ে যাতায়াত একেবারে দুরুহ হয়ে পড়েছে। নীলফামারীর সৈয়দপুর বাসটার্মিনাল এলাকার আদানী মোড় থেকে দলুয়া চৌধুরীপাড়া ৩ কিলোমিটার সড়কটি খানা খন্দে পরিণত হয়েছে। এ চিত্র উপজেলার প্রায় পাকা সড়কগুলোর অবস্থা।

উল্লেখিত সড়কটি নির্মাণের পর আর কোনো মেরামত বা সংস্কার কাজ করা হয়নি। ফলে সড়কের পিচ ওঠে গেছে। সড়কের সাইড ধসে পড়ে বিপজ্জনক অবস্থায় পৌছেছে। একটি যানবাহন আরেকটি যানবাহনকে সাইড দিতে গিয়ে নিচে পড়ে কিংবা দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে প্রতিনিয়ত। সরেজমিনে রাস্তার বর্তমান চিত্র দেখে মনে হয় এটি পাকা নয় কাঁচা সড়ক। 

ওই এলাকার বাসিন্দা এনামুল হক জানান, রাস্তা তৈরি হওয়ার পর কষনও মেরামত হয়নি। ফলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমরা চলাচল করছি। এই সড়কে উপজেলার কামারপুকুর ও বাঙালিপুর ইউনিয়নের কিছু অংশের লোকজন ও পাশের উপজেলার তারাগঞ্জের সয়ার, দিলালপুর, ভীমপুর, মুছিরহাট প্রভৃতি এলাকার লোকজন চলাচল করে থাকেন। 

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর উপজেলা প্রকৌশলী এএআর রাজু জানান, বেশকিছু গ্রামীণ পাকা সড়ক চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। ভাির যানবাহন বিশেষ করে পাওয়ার টিলার ও ট্রাক্টর মালামাল পরিবহন চলাচলৈর কারণে রাস্তাগুলো নষ্ট হয়ে পড়েছে। বরাদ্দের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। অর্থ বরাদ্দ মিললে গ্রামীণ পাকা সড়কগুলো মেরামত ও সংস্কার করা হবে ।