Opu Hasnat

আজ ১৩ এপ্রিল শনিবার ২০২৪,

প্রাণিসম্পদ অফিসের বরাদ্ধৃত ভ্যাকসিন নষ্ট করলো উপসহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা বাগেরহাট

প্রাণিসম্পদ অফিসের বরাদ্ধৃত ভ্যাকসিন নষ্ট করলো উপসহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা

বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের  জন গুরুত্বপূর্ণ হাঁস মুরগি গরু ছাগল ও, কুকুরের জন্য ফেব্রয়ারী মাসের বরাদ্ধকৃত ২ লক্ষ ৫০ হাজার সম্পূর্ন ভ্যাকসিন ইচ্ছাকৃত নষ্ট করলেন উপসহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মোঃ ফিরোজ আলী খান।

বুধবার (১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মুরগির ভ্যাকসিন নিতে উক্ত অফিসে গেলে দেখা যায় এ ভিন্ন চিত্র। ভ্যাকসিন চাইলে বিদ্যুৎ সংযোগবিহীন একটি ডিপ ফ্রিজ থেকে বের করতে দেখা যায়। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায় গতকাল ৩১ জানুয়ারি অফিস সহায়ক মনির হোসেন বাগেরহাট থেকে হাঁস মুরগি গরু-ছগল পোল্ট্রি ও কেটেল গ্রুপের সকল প্রকার ভ্যাকসিন নিয়ে আসেন।
উক্ত অফিসের উপসহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মোঃ ফিরোজ আলী খান যথা নিয়মে ফ্রিজিং না করে বিদ্যুৎ সংযোগবিহীন বন্ধ একটি ডিপ ফ্রিজের সমস্ত ভ্যাকসিন রেখেদেন। শুধু তাই না তার বসার চেয়ারের নিচেও একটি পটের মধ্যে অনেকগুলি ভ্যাকসিন রাখেন দিয়েছে। 

নষ্ট হওয়া ভ্যাকসিন এর ভিতর রয়েছে আরডিবি প্রায় ২১ হাজার, বিসিআরডিবি ১৯ হাজার, ডাক প্লে ২০ হাজার, কলেরা, খুরা রোগের, বাদলা, গলা ফুলা, তড়কা, কুকুরের ভ্যাকসিন, পিপিআর সহ গুরুত্বপূর্ণ এ মূল্যবান ভ্যাকসিন গুলো নষ্ট হয়েছে।

ব্যাপারে ফিরোজ আলী খান এর কাছে জিজ্ঞাসা করলে তিনি সাংবাদিকদের সাথে অসৌজন্যমূলক  আচরণ করেন। 

সরকারের জন ও গুরুত্বপূর্ণ   ও মূল্যবান  ভ্যাকসিন  জনসাধারণকে না দিয়ে এভাবে নষ্ট করে ফেলা যাহা কর্তব্য  কর্মে অবহেলা  ও সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধিমালা পরিপন্থী।

এ ব্যাপারে মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রাণিসম্পদ  কর্মকর্তা অতিরিক্ত দায়িত্ব মোঃ জাহিদুর রহমান বলেন, আমার অফিসে তিনটি সচল ফ্রিজ  তারপরও কেন বন্ধ ফ্রিজে  ভ্যাকসিন রাখলো এটা তার মোটেই ঠিক হয়নি। ওর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে । 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম তারেক সুলতান বলেন, ব্যাপারটা আমি শুনেছি  তারপরও আপনি ওই দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন।

খুলনা বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ দপ্তরের পরিচালক  ডাক্তার মোঃ লুৎফুর রহমান  বলেন, রেফ্রিজারেটরে হাঁস মুরগির প্রতিষেধক গরু ছাগলের ব্যবহৃত টিকা বীজ সংরক্ষন করে তা বিক্রয় করতে হবে। এতো সময় ভ্যাকসিন বাহিরে রাখার কারনে তার কার্যকারিতা সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যায়।  তিনি গুরুত্বপূর্ণ অপরাধ করেছে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।