Opu Hasnat

আজ ৫ ফেব্রুয়ারী রবিবার ২০২৩,

ব্রেকিং নিউজ

কাস্টমার সার্ভিস ও কর্মী অভিজ্ঞতা আধুনিকীকরণে মাইক্রোসফটের সাথে ব্র্যাক ব্যাংকের চুক্তি অর্থ-বাণিজ্য

কাস্টমার সার্ভিস ও কর্মী অভিজ্ঞতা আধুনিকীকরণে মাইক্রোসফটের সাথে ব্র্যাক ব্যাংকের চুক্তি

কর্মীদের কাজের অভিজ্ঞতা ও কাস্টমার সার্ভিস উন্নত ও আধুনিকীকরণে মাইক্রোসফট এর লাইসেন্সিং সল্যুশন পার্টনার থাকরাল ওয়ানের সাথে মাইক্রোসফট পণ্য ও পরিষেবা সংক্রান্ত চুক্তি (এমপিএসএ) স্বাক্ষর করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় বাণিজ্যিক ব্যাংক ব্র্যাক ব্যাংক।

মাইক্রোসফটের লাইসেন্সিং সল্যুশন পার্টনার হিসেবে থাকরাল ওয়ান ব্র্যাক ব্যাংক’কে মাইক্রোসফট পরিষেবা, অ্যাপ্লিকেশন এবং লিডিং-এজ সল্যুশন প্রদান করবে; যা কিনা কর্মীদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে এবং কাস্টমারদের অভিজ্ঞতা সম্প্রসারিত করতে সহায়তা করবে।

সম্প্রতি, রাজধানী ঢাকার ব্র্যাক ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এ সময় ব্র্যাক ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও চিফ অপারেটিং অফিসার মো. সাব্বির হোসেন এবং ব্র্যাক ব্যাংকের চিফ টেকনোলজি অফিসার নুরুন নাহার বেগম উপস্থিত ছিলেন। অন্যদিকে, উপস্থিত ছিলেন থাকরাল ওয়ানের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার বাসাব বাগচী; মাইক্রোসফট এসইএ নিউ মার্কেটসের জেনারেল ম্যানেজার সুক হুন চিয়া ও মাইক্রোসফটের বাংলাদেশ, ভুটান  ও নেপালের কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ইউসুপ ফারুক সহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।  

এ নিয়ে ব্র্যাক ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং চিফ অপারেটিং অফিসার মো. সাব্বির হোসেন বলেন, “ব্যাংকগুলো দ্রুত উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে মাইক্রোসফট এর সল্যুশনগুলো আমাদের কর্মীদের মধ্যে সহযোগিতা ও প্রোডাক্টিভিটি বাড়াবে; একইসাথে গ্রাহক সেবার মানও বৃদ্ধি করবে।”

এ নিয়ে ব্র্যাক ব্যাংকের চিফ টেকনোলজি অফিসার নুরুন নাহার বেগম বলেন, “আমরা আমাদের ব্যাংকের ট্রান্সফরমেশন দ্রুততর করার জন্য অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে বিনিয়োগ করছি।” তিনি আরো বলেন, “আমাদের কর্মীদের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও উন্নত গ্রাহক অভিজ্ঞতা প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত করতে আমরা মাইক্রোসফট ট্যুলস এবং অ্যাপস ব্যবহার করবো; যাতে করে বাংলাদেশে আর্থিক সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে ব্র্যাক ব্যাংককে ডিজিটাল লিডার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা যায়।”

এ চুক্তির আওতায়, ব্র্যাক ব্যাংক একটি শক্তিশালী, সাশ্রয়ী এবং নির্বিঘ্নে সমন্বিত ডিজিটাল ভিত্তি তৈরি করতে মাইক্রোসফট ৩৬৫ প্রোডাক্টিভিটি ট্যুলগুলো ব্যবহার করতে সক্ষম হবে।

এ নিয়ে মাইক্রোসফটের বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ইউসুপ ফারুক বলেন, “আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান যারা ডিজিটাল অর্থনীতির সাথে নিজেদের প্রবৃদ্ধি ঘটাতে চান, তাদের ক্ষেত্রে প্রযুক্তি প্রতিযোগিতামূলক সুবিধা প্রদান করছে। মাইক্রোসফট ৩৬৫ অ্যাপস ফর এন্টারপ্রাইজের মাধ্যমে ব্র্যাক ব্যাংক টিম আরও স্বয়ংক্রিয়, ইন্টারনাল ওয়ার্কফ্লো (অভ্যন্তরীণ কর্মপ্রবাহ) তৈরি করতে পারবে। তার সাথে ব্যবসায়িক কার্যক্রমের প্রক্রিয়াগুলো আরও সহজ ও প্রবৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করতে পারবে।”

চার হাজার ব্যবহারকারীর সল্যুশন সমন্বিত মাইক্রোসফট ৩৬৫ অ্যাপস ফর এন্টারপ্রাইজ অ্যাপ ব্যবহার করে, ব্র্যাক ব্যাংক অ্যানালিটিক্স দেখার সুযোগসহ একটি সুরক্ষিত প্ল্যাটফর্মে হাইব্রিড কাজ নিশ্চিত করার সাথে সাথে কর্মীর কর্মক্ষমতা এবং অপারেশনাল দক্ষতা উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নত করতে পারবে। এটি ডিজিটাল যুগে মাল্টি ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশন, বিভিন্ন অনলাইন থ্রেটস এর বিরুদ্ধে ব্যাংক’কে রক্ষা করবে; পাশাপাশি, অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি, এম৩৬৫ এন্টারপ্রাইজ অ্যাপস ও টিমস ব্যবহারে অতিরিক্ত নিরাপত্তা প্রদান করবে, ব্যাংকের শাখাগুলোতে  দক্ষতা বাড়াবে এবং লিড টাইম কমিয়ে দিবে; যার ফলে, ব্যাংকের গ্রাহকরা লাভবান হবেন।