Opu Hasnat

আজ ৯ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার ২০২৩,

ব্রেকিং নিউজ

পাইকগাছায় টিসিবির পণ্য না পেয়ে খালি হাতে ফিরলেন ৩ শতাধিক কার্ডধারী! খুলনা

পাইকগাছায় টিসিবির পণ্য না পেয়ে খালি হাতে ফিরলেন ৩ শতাধিক কার্ডধারী!

পাইকগাছা পৌরসভায় টিসিবির পণ্য বিক্রয় অনিয়ম, দুর্নীতি, সেচ্ছাচারিতা ক্ষমতার অপব্যবহারের কারনে ৩ শতাধীক কার্ডধারী খালী হাতে ফিরলেন। তবে বিষয়টি ডিলার অস্বীকার করেছেন। এদিকে, ভোক্তারা প্রসাশনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। 

অভিযোগে জানা যায়, পাইকগাছা পৌরসভা ৯ ওয়ার্ডে টিসিবির কার্ড ধারী ১৬৪১ জন।কার্ডধারীরা মধ্যে পণ্য তেল, চিনি, ডাল ৪০৫ টাকা দরে বিক্রি করার কথা ছিল ২২ ও ২৩ নভেম্বর উপজেলা পরিষদ মাঠ প্রাঙ্গনে। তবে নির্ধারিত দিনে নির্ধারিত স্হানে পন্য বিক্রি না করে কৌশলে পরবরর্তীতে পৌরসভা সদরে টাউন স্কুলে শনিবার (২৬/১১/২২) সকাল ১১ থেকে ৩ টা পর্যন্ত পন্য বিক্রি করে। ২ দিন বিক্রি করার কথা থাকলেও ট্যাগ অফিসার ইমান উদ্দিন ও ডিলার মেসার্স কপিলমুনি ট্রেডার্স এর মালিক মোনোওয়ার হুসাইন যোগসাজশে অর্ধেকের বেশি লোকের কাছে বিক্রি করে। বাকী প্রায় ৩ শতাধিক কার্ডধারীদের মাঝে পন্য ট্যাগ অফিসার ইমান উদ্দিন ও ডিলার মোনোওয়ার হুসাইন সুকৌশলে বেশি দামে অন্যত্র বিক্রি করেছে অভিযোগ উঠেছে। 

কার্ডধারী আবু সাত্তার, সেলিম, লিজা, মনিরুজ্জামান জানান, বিকাল ৪টার দিকে পন্য কিনতে গেলে মাল নাই বলে আমাদের জানিয়ে দেয়। আমরা বলি ২ দিন বিক্রি করার কথা এক দিনে কি ভাবে বিক্রি হলো, আর আমাদের কার্ডের মাল কে নিল, এমন কথা বলা মাত্র ট্যাগ অফিসার বলেন কাউকে কৈফিয়ত দিতে আসে নি । 

১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলাউদ্দীন গাজী অভিযোগ করে বলেন, ট্যাগ অফিসার ইমান উদ্দিন ও ডিলার দরজা লাগিয়ে পন্য বিক্রি করেছে, আমার ওয়ার্ডে ২৫ জন কার্ডধারী সহ পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রায় ৩ শতাধীক কার্ডধারী পন্য ক্রয় করতে পারেনি। ট্যাগ অফিসার ইমান উদ্দিন ও ডিলার ব্যাপক অনিয়ম করেছে। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।

ডিলার মোনোওয়ার হুসাইন বলেন, ২ দিন দেয়ার কথা ছিল ঠিক, কিন্তু ম্যাম যে ভাবে বলেছে সেই বিক্রি করা হয়েছে। ট্যাগ অফিসার ইমান উদ্দিন জানান, ২ দিন পন্য বিক্রি করার কথা আমি জানতাম না, ডিলার যে ভাবে বলেছে সেই ভাবে বিক্রয় করা হয়েছে। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম জানান, ভুয়া কার্ডধারীরা পন্য নিয়ে চলে গেছে, যে কারণে প্রকৃত কার্ডধারীরা পন্য পাইনি, আগামী মাসে প্রকৃত কার্ডধারীরা যেন পন্য পায় সে ব্যবস্হা গ্রহণ করেছি।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর