Opu Hasnat

আজ ৩০ নভেম্বর বুধবার ২০২২,

সৈয়দপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে গৃহবধূর মৃত্যু, কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার নীলফামারী

সৈয়দপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে গৃহবধূর মৃত্যু, কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

নীলফামারীর সৈয়দপুরের কামারপুকুর ইউনিয়নের বাগডোকরায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় (৪ অক্টোবর) বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে হামিদা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। সে ওই এলাকার মোরছালিন ইসলামের স্ত্রী এবং দুই সন্তানের জননী।

এলাকাবাসী জানায়, ফাঁকা বাড়িতে গৃহবধূ একাই নিজমনে কাজ করছিলেন। এসময় ঘরের ভেতরে থারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান ওই গৃহবধূ। প্রতিবেশীরা বাড়িতে আসলে বিষয়টি টের পান।

কামারপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে, নীলফামারীর সৈয়দপুরে গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় হাবিব হোসেন (১৭) নামের এক কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের সিপাইগঞ্জ ডাঙ্গাপাড়ায় কাজী মোতাহার হোসেনের মেহগনি বাগান থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। সে একই এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা যায়, আগের দিন অনেক রাতেও বাড়ি না ফেরায় মোবাইলে কল দিলে রিং হলেও রিসিভ করছিল না সে। ওই রাতেই বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেও তার কোন হদিস পাওয়া যায়নি। পরের দিন মঙ্গলবার ভোরে ফজরের নামাজ পড়ে সিপাইগঞ্জ বাজার মসজিদ থেকে বাড়িতে ফিরছিলেন রফিকুল ইসলাম। এ সময় পাশেই মেহগনি বাগানে গাছের ডালের সাথে গলায় শার্ট পেঁচিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় ছেলের মরদেহ ঝুলতে দেখেন তিনি। তাঁর চিৎকারে আশেপাশের লোকজনও ছুটে আসেন। মরদেহ নিচে নামানোর পর তার প্যান্টের পকেটে ভাইব্রেশন করা অবস্থায় মোবাইল পাওয়া যায়। তার সাথে থাকা টাকা বা মোবাইলও খোয়া যায়নি। পরিবারের ধারনা সে আত্মহত্যা করেছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে সুরতহাল রিপোর্টে মরদেহের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়না তদন্তের জন্য মরদেহটি নীলফামারী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।