Opu Hasnat

আজ ২৩ মে সোমবার ২০২২,

নতুন ইসি দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করবেন : হানিফ রাজনীতি

নতুন ইসি দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করবেন : হানিফ

নবগঠিত নির্বাচন কমিশন দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবে বলে আশা প্রকাশ করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। নতুন কমিশনকে স্বাগত জানিয়ে দলটির নেতারা বলছেন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও সকলের অংশগ্রহণে একটি নির্বাচন উপহার দিতে নতুন ইসিকে তারা সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ পাঁচজনকে নিয়োগ দিয়ে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করেছেন।

সাবেক সচিব কাজী হাবিবুল আউয়াল নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। কমিশনাররা হলেন অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ রাশেদা সুলতানা এমিলি, অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহসান হাবীব খান, সাবেক সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর এবং আনিছুর রহমান।

দেশের ত্রয়োদশ সিইসি হিসেবে নিয়োগ পাওয়া হাবিবুল আউয়ালের নেতৃতত্বাধীন এই কমিশন পাঁচ বছরের জন্য নিযুক্ত হয়েছেন। এই কমিশনের পরিচালনায় দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর অন্যতম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ বলেন, নতুন নির্বাচন কমিশনার ভালো মানুষ হিসেবে পরিচিত। কমিশনের দায়িত্ব অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করা। এ ব্যাপারে আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো।

দলের সভাপতিমণ্ডলীর আরেক সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, নতুন নির্বাচন কমিশন একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেবে, এটাই জনগণের প্রত্যাশা। একইসঙ্গে তারা তাদের দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করবেন, দেশবাসী যাতে তাদের ওপর আস্থা রাখতে পারে।

তিনি বলেন, দেশবাসীর প্রত্যাশাই হলো নির্বাচন যেন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়। দেশের মানুষ যাতে ভোটের মাধ্যমে তাদের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটাতে পারে—সেই বিষয়টি নিশ্চিত করবে এই কমিশন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, নতুন ইসিতে যারা দায়িত্ব পেয়েছেন কর্মজীবনে প্রত্যেকেই দক্ষতা, সততা এবং যোগ্যতার ভিত্তিতে কাজ করেছেন। আমাদের প্রত্যাশা, তারা অতীতে যে যোগ্যতা-দক্ষতা দেখিয়েছেন, সেভাবে দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করবেন।