Opu Hasnat

আজ ১৭ আগস্ট বুধবার ২০২২,

জান-মাল নিয়ে অগ্নিঝুঁকি

নির্মাণ কাজ শেষ হলেও চালু হচ্ছে না সিংগাইর ফায়ার সার্ভিস স্টেশন! মানিকগঞ্জ

নির্মাণ কাজ শেষ হলেও চালু হচ্ছে না সিংগাইর ফায়ার সার্ভিস স্টেশন!

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন নির্মাণের কাজ শেষ হওয়ার ৬ মাস পেরিয়ে গেলেও চালু হচ্ছে না  কার্যক্রম। ফলে, জান-মাল নিয়ে অগ্নিঝুঁকি ও সড়ক দূর্ঘটনায় অসহায়ত্বের মধ্যে দিয়ে দিন পার করছেন  উপজেলাবাসি।

এদিকে, মানিকগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগ ইতোমধ্যেই ভবনের শতভাগ কাজ সম্পন্ন করে ফায়ার সার্ভিস বিভাগকে বুঝে নিতে বলেছেন। নির্মাণকাজে  কিছু ত্রুটি-বিচ্যুতি থাকায় ফায়ার সার্ভিস বিভাগ ভবন বুঝে নিচ্ছে না বলে জানা গেছে। দুই পক্ষের সমন্বয়হীনতার কারণে এ স্টেশনে জনবলসহ দুটি গাড়ি বরাদ্দ হলেও শুরু হচ্ছে না এর কার্যক্রম। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীভবন উদ্বোধনের জন্য সময় দিতে না পারাকেও স্টেশন চালুর বিলম্বের কারণ বলে জানান ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ।

মানিকগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সিংগাইর উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন নির্মাণের জন্য ২০১৫ সালে ঘোনাপাড়া হাসপাতাল রোডে ৩৩ শতক জমি অধিগ্রহন করা হয়। পরবর্তীতে ভবন নির্মাণের জন্য দরপত্র আহ্বান করা হলে মেসার্স মদিনা এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কার্যাদেশ পায়। এতে নির্মাণ ব্যয় বরাদ্দ দেয়া হয় ৪ কোটি ১৭ লাখ টাকা। এর পর ২০১৮ সালের প্রথম দিকে নির্মাণ কাজ শুরু করে ওই প্রতিষ্ঠানটি। নির্মাণ কাজের নির্ধারিত সময় দেড় বছর অতিক্রম হলেও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজ  সম্পন্ন করতে না পারায় আরও কিছু সময় বৃদ্ধি করে বাকি কাজ ২০২১ সালের জুন মাসের দিকে শেষ করে গণপূর্ত বিভাগকে বুঝিয়ে দেয়। এরপর গণপূর্ত বিভাগ ফায়ার সার্ভিসকে ভবনটি বুঝে নিতে বলেন। এর প্রেক্ষিতে গত ২৬ ডিসেম্বর ঢাকা বিভাগের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক দিন মনি শর্মা ভবনটি পরিদর্শন করে কাজে সামান্য ত্রুটি দেখতে পান এবং সেগুলো সংশোধন করতে নির্দেশ দেন। ত্রুটিগুলো সংশোধন হলেই ভবনটি বুঝে নেয়া হবে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

স্থানীয়রা জানান, এ এলাকায় অহরহ অগ্নিকান্ড ও সড়ক দূর্ঘটনা ঘটছে। এতে সম্পদসহ ব্যাপক প্রাণহানি হচ্ছে। ফায়ার সার্ভিসটি চালু হলে দূর্ঘটনারোধে দ্রুত প্রতিকার পাওয়া যেত। এ প্রসঙ্গে, সিংগাইর পৌরসভার মেয়র আবু নাঈম মোহাম্মদ বাশার বলেন, সিংগাইর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন ভবন নির্মাণ কাজ শেষ হওয়া সত্ত্বেও  কার্যক্রম শুরু না হওয়ায় অগ্নিকান্ড, সড়ক দুর্ঘটনাসহ অন্যান্য দুর্ঘটনা সহজে মোকাবিলা করা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে উপজেলাবাসী। তিনি স্টেশনটি দ্রুত চালুর দাবি জানান।

এ ব্যাপারে মানিকগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক মো. শরিফুল  ইসলাম জানান, সিংগাইর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের জন্য বিভিন্ন পদে প্রায় ২০ জন লোক পদায়ন করা হয়েছে। এদের এখন অন্য স্টেশনে কাজ করানো হচ্ছে। এছাড়া ২টি গাড়িও বরাদ্দ পেয়েছি। তিনি আরও জানান প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে উদ্বোধনের দিনক্ষণ নির্ধারণ হলেই ভবন বুঝে নেয়া হবে। নিয়োগপ্রাপ্তদের এখানে এনে দায়িত্ব  দেয়া হবে।  তারা সুন্দর মতো এ স্টেশনটি চালাতে পারবে বলে মনে করছি ।