Opu Hasnat

আজ ২৪ জানুয়ারী সোমবার ২০২২,

দুর্গাপুর ইউপি নির্বাচনে আ‘লীগের গলার কাঁটা বিদ্রোহী প্রার্থীরা নেত্রকোনা

দুর্গাপুর ইউপি নির্বাচনে আ‘লীগের গলার কাঁটা বিদ্রোহী প্রার্থীরা

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী রোববার। এতে ৭টি ইউনিয়নে আ’লীগ প্রার্থীর পাশাপাশি স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও প্রতিদ্বন্ধিতায় নেমেছেন কোমর বেঁধে। এ উপজেলায় ৭টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২০জন, সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৭৪ জন ও সাধারণ মেম্বার পদে ২৩৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

এ নিয়ে শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে জানা গেছে, ঘুম নাওয়-খাওয়া বাদ দিয়েই প্রত্যেকের অবস্থান থেকে চালিয়ে যাচ্ছে জোর প্রচার প্রচারণা। তবে অনেক ইউনিয়নেই সতন্ত্রপ্রার্থী ও কর্মীদের ওপর প্রচারে বাঁধা ও হুমকীর অভিযোগ রয়েছে। চেয়ারম্যান পদে যারা লড়ছেন তারা হলেন ১নং কুল্লাগড়া ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত সুব্রত সাংমা (নৌকা), স্বতন্ত্রপ্রার্থী আব্দুল আওয়াল (আনারস), ইসলামি আন্দোলন মোঃ মজিবুর রহমান (হাতপাখা)। ২নং দুর্গাপুর ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত শাহিনুর আলম সাজু (নৌকা), স্বতন্ত্রপ্রার্থী যুবলীগ নেতা মোঃ সাদেকুল ইসলাম (আনারস)। ৩নং চন্ডিগড় ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত আলতাবুর রহমান কাজল (নৌকা), স্বতন্ত্রপ্রার্থী এমদাদুল হক আলম সরকার (আনারস), ৪নং বিরিশিরি ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত মোঃ রফিকুল ইসলাম রুহু (নৌকা), স্বতন্ত্রপ্রার্থী মোঃ মজিবুর রহমান ফকির (ঘোড়া) ও নিবাস সরকার (মোটরসাইকেল), ৫নং বাকলজোড়া ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী মোঃ শফিকুল ইসলাম শফিক (নৌকা), স্বতন্ত্রপ্রার্থী মোঃ ইয়াকুব আলী তালুকদার (আনারস) ও মোঃ হাবিবুর রহমান (মোটরসাইকেল), ৬নং কাঁকৈরগড়া ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী শিব্বির আহমেদ তালুকদার বাচ্চু (নৌকা), স্বতন্ত্রপ্রার্থী গোলাম রাব্বি ভূইয়া (ঘোড়া), আঃ হামিদ বেগ (আনারস) ও ফজলুল কাদের (মোটরসাইকেল)। ৭নং গাঁওকান্দিয়া ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক (নৌকা), স্বতন্ত্রপ্রার্থী আঃ মতিন মোতালেব (ঘোড়া), মোঃ শাহজাহান (আনারস), মো. মোস্তফা কামাল (হাতপাখা)।

এ নিয়ে সাধারণ ভোটারগণ যুগান্তর কে জানান, ‘‘কাইল ভোট, আমরা আর মাইষের কতায় ভোট দিতাম না, খাইয়াম উপরে ভোট দিয়া তলে, পনরো বছর ধইরা কামাইছে অহন আমরা কিছু খাইতাছি?’’ আমরা অহন বেহল না, নেতারার কথা হুনার টাইম নাই। সুষ্ঠুভোট দেয়া নিয়ে সাধারণ ভোটারগণ বলেন, এই উপজেলায় ৭টি ইউনিয়নে যদি সুষ্ঠ ভোট হয় তাহলে, নৌকা প্রতিকে মাত্র ২টি ইউনিয়নে বিজয়ী হতে পারে। দীর্ঘ ৫ বছর পর আবার ভোট দিতে গিয়ে নতুন প্রজন্মের ভোটারগণ বলেন, আমরা এবার প্রথম ভোট দিচ্ছি, বারবার যারা ক্ষমতায় থেকে দলের ভাবমুর্তি নস্ট করেছে, আমরা তাদের ভোট দিবো না।