Opu Hasnat

আজ ১ ডিসেম্বর বুধবার ২০২১,

জগন্নাথপুরে মৎস্যজীবীদের উপর হামলা-মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন সুনামগঞ্জ

জগন্নাথপুরে মৎস্যজীবীদের উপর হামলা-মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

নিরীহ মৎস্যজীবীদের উপর হামলাও মিথ্যামামলার প্রতিবাদে সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির সন্মুখে মানববন্ধন এবং জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবরে গণস্বাক্ষরযুক্ত স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।  

সোমবার বিকেলে সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির সন্মুখে জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউপির তেলীকোনা গ্রামের মৎস্যজীবিদের অংশ গ্রহনে উক্ত মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন প্রবীন মৎস্যজীবী মো: শামসুল হক, মৎস্যজীবী মো: আলম, হাবিবুর রহমান, নাজিম উদ্দিন, নজরুল ইসলাম, রইছ উদ্দিন, আবুল বশর, আবুলমিয়া, ফজরুল প্রমুখ।

মানববন্ধন ও লিখিত স্মারকলিপিতে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন “কামারখালী নদী (১মখন্ড) উন্মুক্ত জলমহালের তীরবর্তী ১৯৮ জন তালিকাভুক্ত প্রকৃত মৎস্যজীবির পক্ষে তেলিকোনা গ্রামের মৃত সুনা উল্লাহর পুত্র মাতাব আলীর নামে টোকেন ফি পরিশোধ সাপেক্ষে ১৪২৮ বাংলা সনের ৩০ চৈত্র পর্যন্ত মৎস্য আহরনের অনুমতি প্রদান করা হয়। মৎস্যজীবিদের পক্ষে মাতাব আলী অত্র জলমহালের টোকেন ফি ভ্যাট ও উৎস্যকর সহ সমুদয় টাকা সোনালী ব্যাংকে ট্রেজারী চালানের মাধ্যমে জমা করলে মাননীয় রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর সুনামগঞ্জ বিগত ০২/০৯/২০২১ইং তারিখে সকল মৎসজীবিগনকে মৎস্য আহরনের অনুমতি প্রদান করেন। তৎপর হইতে উক্ত মাতাব আলীও তার সহযোগী নাসিম ইসলাম (রাজু) পিতা-ইসলাম আলী, বর্তমানে মাননীয় এ্যটর্নি জেনারেলের সহকারী হিসেবে সুপ্রিম কোর্ট ঢাকায় কর্মরত। তিনি তাহার পদমর্যাদা ব্যবহার করিয়া মাতাব আলীকে বাদী সাজাইয়া গরীব মৎস্যজীবীদের বিরুদ্ধে একাধিক মিথ্যা মামলা মোকদ্দমা দায়ের করাইয়া হয়রানী করাইতেছেন। সেইসাথে তাদেরকে প্রাননাশক হুমকি ধামকি সহ অন্যান্য মৎস্যজীবীদেরকে মিথ্যা মামলা মোকদ্দমায় জড়িয়ে হয়রানী করবে মর্মে প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছে।

বক্তারা উক্ত মিথ্যা মামলা গুলোর সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত এবং জান-মালের নিরাপত্তা প্রার্থনা করে মাননীয় জেলা প্রশাসক ও মাননীয় জেলা পুলিশ সুপার বরাবরে গনস্বাক্ষরযুক্ত স্বারক লিপি প্রদান করেন। মামলাবাজ মাতাব আলীও তার সহযোগী কর্তৃক দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচার জন্য ও নিরীহ মৎস্যজীবীদের জান মালের নিরাপত্তার জন্য মাননীয় পরিকল্পনামন্ত্রী, মাননীয় এ্যাটর্নি জেনারেলসহ জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবরে গণস্বাক্ষরযুক্ত স্মারকলিপির মাধ্যমে প্রশাসনের হস্থক্ষেপ চেয়েছেন।

উল্লেখ্য, উপরোক্ত দাবীতে গত ২৩ অক্টোবর শনিবার দুপুর ২টায় স্থানীয় তেলীকোনা জামে মসজিদ সংলগ্ন সড়কে তেলীকোনা গ্রামবাসীর উদ্যোগে অনুরূপ একটি প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। উক্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন কারানির্যাতিত প্রবীন মৎস্যজীবী মো: শামসুল হক। বক্তব্য রাখেন মৎস্যজীবী মো: আলম, হাবিবুর রহমান, নাজিম উদ্দিন, নজরুল ইসলাম, কামাল উদ্দিন, আবুল হোসেন, রইছ উদ্দিন, মহিম উদ্দিন, বদর উদ্দিন, আব্দুর রইছ, আব্দুল মোছাব্বির, জিয়া উদ্দিন, আব্দুল বাহার, নাছির উদ্দিন, ছদরুল মিয়া, জাহাঙ্গির হোসেন, আবুল বশর, মিনারা বেগম, হালেমা বেগম প্রমুখ। মানববন্ধনে শতাধিক মৎস্যজীবী অংশ গ্রহন করেছিলো।