Opu Hasnat

আজ ২৭ অক্টোবর বুধবার ২০২১,

নদীতে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার, স্বজনদের আহাজারী মাদারীপুর

নদীতে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার, স্বজনদের আহাজারী

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার পালরদ্দি নদীর পাড় খেলার সময় ডুবে গিয়ে আব্দুল্লাহ আরাফাত নামে এক আড়াই বছর বয়সের শিশু নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের প্রায় ২২ ঘন্টা পর ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে স্থানীয় লোকজন। রোববার সকালে পালরদ্দী নদীর পদ্দারঘাট নামক স্থান থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত আব্দুল্লাহ আরাফাত পৌর এলাকার চর ঠেঙ্গামারা গ্রামের আলাই ভান্ডারীর ছেলে।

সরেজমিন ও পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, শনিবার সকালে শিশু আব্দুল্লাহ আরাফাত একা নদীর পাড়ে খেলতে গিয়ে হঠাৎ করে তার পা পিছলে পড়ে গিয়ে নদীতে ডুবে নিখোঁজ হয়। পরে খবর পেয়ে কালকিনি থানা পুলিশের সহযোগীতায় মাদারীপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে নদীর তিন কিলোমিটার জুরে উদ্ধার কার্যক্রম চালান। কিন্তু নদীতে তীব্র শ্রোতের কারনে তারা তাকে উদ্ধার করতে ব্যর্থ হন। রোববার সকালে শিশু আবদুল্লাহ আরাফাতের লাশ নদীতে ভাসতে দেখে স্থানীয়রা উদ্ধার করেন। পরে শিশু  আব্দুল্লাহ আরাফাতের লাশ তার বাড়িতে পৌছলে স্বজনদের বুকফাটা আর্তনাদে পুরো পরিবেশ ভারি হয়ে ওঠে।

নিহত শিশুর মা পারভিন বেগম আহাজারী করে বলেন, আমাদের বেখেয়ালের কারনে আরাফাতকে জীবনের তরে হারালাম।

মাদারীপুর ফায়ার সার্ভিসের সাব-কর্মকর্তা মাহাতাব হোসেন বলেন, ডুবুরির মাধ্যমে নদীতে আব্দুল্লাহ আরাফাতের উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছিলাম। তখন নদীতে প্রচন্ড স্রোত থাকায় কোথায়ও তাকে পাওয়া যায়নি। আজ ভেসে উঠায় তাকে পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার এসআই মোঃ কাঞ্চন মিয়া বলেন, সকালে ঘটনা শোনার সঙ্গে-সঙ্গে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে হাজির হয়ে বিভিন্ন উপায়ে নদী থেকে নিখোঁজ  আব্দুল্লাহ আরাফাতকে উদ্ধারের চেষ্টার কোন ত্রুটি রাখিনি। তবে আজকে তার লাশ নদীতে ভেসে ওঠার কারনে পাওয়া গেছে।