Opu Hasnat

আজ ১১ মে মঙ্গলবার ২০২১,

ব্রেকিং নিউজ

‘ফোর্বস থার্টি আন্ডার থার্টি এশিয়া ২০২১’ -এর তালিকায় আইএসডি’র প্রাক্তন তিন শিক্ষার্থী শিক্ষা

‘ফোর্বস থার্টি আন্ডার থার্টি এশিয়া ২০২১’ -এর তালিকায় আইএসডি’র প্রাক্তন তিন শিক্ষার্থী

চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল ঘোষিত ফোর্বসের ষষ্ঠ বার্ষিক ‘থার্টি আন্ডার থার্টি এশিয়া’-র তালিকায় স্থান পেয়েছে ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ঢাকার (আইএসডি) তিন প্রাক্তন শিক্ষার্থী। 

চলতি বছর বিখ্যাত অর্থনৈতিক ম্যাগাজিন ফোর্বস ১০টি বিভাগে মোট তিনশ’ তরুণকে ফিচার করে। তালিকায় রয়েছে এশিয়ার ত্রিশ বছরের কম বয়সী তরুণ উদ্যোক্তারা, যারা বৈশ্বিক মহামারি দ্বারা উদ্ভূত অনিশ্চিত পরিস্থিতিকে ছাপিয়ে নিজেদের প্রমাণ করেছেন এবং নতুন দিনের প্রত্যাশায় নিরলসভাবে কাজ করছেন। 

দৃঢ়তা, সময়োপযোগী উদ্ভাবন এবং কঠোর পরিশ্রমের ছাপ রেখে আইএসডি’র প্রাক্তন শিক্ষার্থী শেহজাদ নূর তাউস প্রিয়, রিজভানা হৃদিতা এবং মো. জাহিন রোহান রাজীন, আড়াই হাজারেরও বেশি মনোনয়নপ্রাপ্তদের পেছনে ফেলে ফোর্বসের তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন। 

এ অর্জন দেশ ও আইএসডি উভয়ের জন্যই অত্যন্ত গর্বের, কারণ তালিকার ত্রিশ জন তরুণ-তরুণীর মধ্যে নয়জনই বাংলাদেশি এবং এই নয় জনের মধ্যে তিনজনই একই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের- ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ঢাকার (আইএসডি) প্রাক্তন শিক্ষার্থী। ‘গেজ’-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা শেহজাদ নূর তাওস প্রিয় ২০১৫ সালে এবং হাইড্রোকুও+ এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা রিজভানা হৃদিতা ও মো. জাহিন রোহান রাজীন যথাক্রমে ২০১০ ও ২০১৬ সালে আইএসডি থেকে পাশ পাশ করেছেন। 

উল্লেখ্য, উদ্ভাবক শেহজাদ নূর তাউস প্রিয় মাত্র ২১ বছর বয়সে তার প্রথম পেটেন্ট দায়ের করেছিল। শেহজাদ এবং মোতাসিম বীর রহমান (২৬) তাদের এআই-ভিত্তিক উদ্যোগ ‘গেজ’-এর কারণে তালিকাভুক্ত হয়েছেন। গেজ অনলাইন লেনদেনের জন্য ভিজ্যুয়ুাল রিকগনিশন এপিআই সরবরাহ করে। পূর্বে এই স্টার্টআপটি ২০১৯ সালের সেরা স্টার্টআপ হিসেবে বাংলাদেশ বিজনেস ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড এবং ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত স্টার্টআপ ওয়ার্ল্ড কাপ বাংলাদেশের মতো স্বীকৃতি অর্জন করেছে। 

অন্যদিকে, রিজভানা হৃদিতা (২৮) এবং জাহিন রোহান রাজীন (২২) তাদের স্টার্টআপ হাইড্রোকুও+ জন্য এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হন। হাইড্রোকুও+ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে পানি ব্যবস্থাপনার উন্নতিসাধন করে, পানির গুণগত মান জানাতে পারে এবং ভবিষ্যৎ চাহিদা সম্পর্কে পূর্বাভাস দিতে পারে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যসমূহে অবদান রাখার জন্য এর আগে সেপ্টেম্বরে রাজিন জাতিসংঘের ‘১৭ ইয়াং লিডার’ এর তালিকায় তালিকাভুক্ত হয়েছিলেন।