Opu Hasnat

আজ ১ অক্টোবর শনিবার ২০২২,

কুড়িগ্রামে বন্যার্তদের সহযোগীতায় ইয়ূথ এগেইনস্ট হাঙ্গার কুড়িগ্রামসংগঠন

কুড়িগ্রামে বন্যার্তদের সহযোগীতায় ইয়ূথ এগেইনস্ট হাঙ্গার

মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য। তাই মানুষই মানুষের দুঃখ দুর্দিনে এগিয়ে আসে, বাড়িয়ে দেয় সাহায্যের হাত । বন্যায় তলিয়ে আছে কুড়িগ্রাম জেলার ৯ উপজেলার ৫০ ইউনিয়নের চর, দ্বীপচর ও গ্রাম। এসব এলাকার প্রায় ৫০ হাজার পরিবার পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছে। অনেক পরিবার উঁচুমাচা ও কলাগাছের ভেলায় অবস্থান নিয়ে দুর্বিষহ দিন পার করছে। খাদ্য ও বিশুদ্ধ খাবার পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।

গ্রামীণ সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় ভেঙ্গে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। তাই এই বানভাসি মানুষদের মুখে হাসি ফোটাতে সেচ্ছাসেবী যুব সংগঠন ইয়ূথ এগেইনস্ট হাঙ্গার গত ১২ ই আগস্ট ২০১৬ তারিখে, কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার, বেগমগঞ্জ ইউনিয়নে ৪৫০ বন্যার্ত পরিবারের মাঝে প্যাকেট জাত ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে।

প্রতি পরিবারকে ৫কেজি চাল, ১/২ কেজি ডাল, ১/২ লিটার সয়াবিন তেল, ১কেজি চিড়া, ১/২ কেজি গুড়, ১/২ কেজি লবণ, ৫০গ্রাম হলুদ গুড়া, ৫০ গ্রাম মরিচ গুড়া, ২পিচ ডেটল সাবান, ১পিচ কাপড় কাচার সাবান, ৫ প্যাকেট স্যালাইন, ১পিচ ম্যাচ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আরও প্রায় ১০০ জন মহিলাকে স্যানেটারি ন্যাপকিন ও বাচ্চাদের বিস্কুট দেওয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব উকা মন্ডল, ইয়ূথ এগেইনস্ট হাঙ্গার বাংলাদেশের জাতীয় কমিটির সভাপতি, আব্দুল্লাহ আল কাইয়ুম কাফি, সমন্বয়ক গাজী আনিকা আসলাম, আর ডি আর এস কুড়িগ্রাম জেলার ইনচার্জ মো: শরিফুল ইসলাম, ইয়ূথ লিডার ওমনি, তন্ময়, শিফাত, ফরহাদ, অপু, সুমি, রহমত, আতিক, আদনান, রিপন, আকবর প্রমূখ।

সংগঠনের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল কাইয়ুম কাফি বলেন, ‘ইয়ূথ এগেইনস্ট হাঙ্গার ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। দেশের সংকটময় অবস্থায়, দেশের মানুষের জন্য কাজ করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য।

বন্যার্তদের সহযোগিতায় আমাদের ডাকে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন সংগঠন- হোপ৮৭ বাংলাদেশ, ফিল্ম শপ, মোটিভেট বাংলাদেশ, আই.এফ.এম.এস.এ. সহ ব্যক্তিগতভাবে  অনেকে এগিয়ে এসেছিলেন, যার জন্যই আমরা মাত্র দেড় সপ্তাহের মধ্যে সফলভাবে এমন একটা মহৎ আয়োজন করতে পেরেছি।আমরা সবার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’